বিংশ শতকে ইউরোপ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর |নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় প্রশ্ন উত্তর PDF |Class 9 history 5th chapter question in bengali pdf

বিংশ শতকে ইউরোপ নবম শ্রেণির ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর |নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় প্রশ্ন উত্তর PDF |Class 9 history 5th chapter question in bengali  pdf

 

আজ আমি তোমাদের জন্য নিয়ে এসেছি  নবম শ্রেণির ইতিহাসের পঞ্চম অধ্যায় বিংশ শতকে ইউরোপ প্রশ্ন উত্তর PDFClass IX five chapter question Pdf in bengali | WB Class Nine history question in bengali |WBBSE পরীক্ষা প্রস্তুতির জন্য নবম শ্রেণি ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর pdf গুরুত্বপূর্ণ ভাবে তোমাকে সাহায্য করবে।


তাই দেড়ি না করে এই পোস্টের নীচে দেওয়া Download লিংকে ক্লিক করে |নবম শ্রেণি ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় বিশ শতকে ইউরোপ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর pdf download । Class ix History 5th chapter important Question in Bengali Pdf  ডাউনলোড করো । এবং প্রতিদিন বাড়িতে বসে প্রাক্টিস করে থাকতে থাক।ভবিষ্যতে আরো গুরুত্বপূর্ণ Note ,Pdf , Current Affairs,ও প্রতিদিন মকটেস্ট দিতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।


বিংশ শতকে ইউরোপ নবম শ্রেণির ইতিহাসের প্রশ্ন উত্তর নিচে দেওয়া হলো।


বিংশ শতকে ইউরোপ mcq প্রশ্ন

1.

2.

3.

4.

5.



নবম শ্রেণি ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় 1 নম্বরের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর [একটি বাক্যে উত্তর দাও]

নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়ের ৪ নং প্রশ্ন উত্তর


বিংশ শতকের ইউরোপ 1 নং প্রশ্ন উত্তর

1. রাশিয়ার সম্রাটদের কী বলা হত ?

উওর। রাশিয়ার সম্রাটদের জার বলা হত।

2.জারের সাম্রাজ্য কতদূর বিস্তৃত ছিল ?

উত্তর। জারের সাম্রাজ্য বান্টিক থেকে প্রশান্ত মহাসাগর, কৃয়সাগর

থেকে কাস্পিয়ান সাগর হয়ে আরল সাগর পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল।

.3.রাশিয়ার কোন জার ভূমিদাসদের মুক্তির জন্য আইন প্রণয়ন করেন ?

উত্তর। জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডার ভূমিদাসদের মুক্তির জন্য আইন প্রণয়ন করেন।

T4 রাশিয়ার একজন উদারপন্থী জারের নাম লেখাে।

উত্তর রাশিয়ার একজন উদারপন্থী জারের নাম হল দ্বিতীয় আলেকজান্ডার।

15.ভূমিদাসদের মুক্তিনামাকে অগ্রাহ্য করেন কোন্ জার?

উত্তর। ভূমিদাসদের মুক্তিনামাকে অগ্রাহ্য করেন জার তৃতীয় আলেকজান্ডার।

_6_ কোন জারের আমলে রাশিয়ারা সাহিত্যের ক্ষেত্রে উন্নতি যা করা মা?

উত্তর। জার প্রথম নিকোলাসের আমলে রাশিয়ায় সাহিত্যের ক্ষেত্রে উন্নতি লক্ষ করা যায়।

T®7 রাশিয়ায় কোন রাজবংশ। ৩০০ বছর রাজত্ব করেছিল?

উত্তর। রাশিয়ায় রােনাভ রাজবংশ ৩০০ বছর রাজত্ব করেছিল।

7.রুশ জার দ্বিতীয় নিকোলাস কোন বংশের শাসক ছিলেন?

উত্তর। রুশ জার দ্বিতীয় নিকোলাস রােমানভ বংশের শাসক ছিলেন।

9 বুলিঘিন শাসনতন্ত্র কে চাল করেন?

উত্তর। বুলিঘিন শাসনতন্ত্র চালু করেন জার দ্বিতীয় নিকোলাস। জার দ্বিতীয় নিকোলাস কবে সিংহাসন ত্যাগ করেন? 

উত্তর জার দ্বিতীয় নিকোলাস ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের ১৪ মার্চ সিংহাসন ত্যাগ করেন।

11 | কত খ্রিস্টাব্দে রাশিয়ায় রােমানভ বংশের শাসনের অবসান ঘটে?

উত্তর। ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে রাশিয়ায় রােমানভ বংশের শাসনের অবসান ঘটে।

12। রাশিয়ায় জারতন্ত্রের পতন কবে হয়?

উত্তর রাশিয়ায় ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে রুশ বিপ্লবের ফলে জারতন্ত্রের।

13। রাশিয়ার শেষ জার কে ছিলেন?

উত্তর রাশিয়ার শেষ জার ছিলেন দ্বিতীয় নিকোলাস।।

(১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের রুশ বিপ্লবের প্রাক্কালে রাশিয়ার জার। কে ছিলেন?

উত্তর ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে রুশ বিপ্লবের প্রাক্কালে রাশিয়ার জার । ছিলেন দ্বিতীয় নিকোলাস।

75 রুশ বিপ্লবের ফলে রাশিয়ায় কোন্ বংশের শাসনের অবসান হয়?

ভতর রুশ বিপ্লবের ফলে রাশিয়ায় রােমানভ বংশের শাসনের অবসান হয়।

16 । বলশেভিক বিপ্লবের পূর্বে মােট কতজন জার রাজত্ব করেছিলেন রাশিয়াতে ?

উত্তর বলশেভিক বিপ্লবের পূর্বে মােট ১৮ জন জার রাজত্ব করেছিলেন রাশিয়াতে।

17। রাশিয়াতে বলশেভিক আন্দোলন সংঘটিত হয় কোন জারের রাজত্বকালে ?

উত্তর রাশিয়াতে বলশেভিক আন্দোলন সংঘটিত হয় জার দ্বিতীয় নিকোলাসের রাজত্বকালে।

উত্তর রাশিয়ার নির্বাচিত আইনসভা ‘মা’ নামে পরিচিত।

19.কত খ্রিস্টাব্দে ‘মা’-র প্রথম অধিবেশন বসে?

উত্তর ১৯০৬ খ্রিস্টাব্দে ‘ডুমা’-র প্রথম অধিবেশন বসে।

20১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের পূর্বে রাশিয়ার সমাজ কত ভাগে বিভক্ত ছিল ?

উত্তর ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের পূর্বে রাশিয়ার সমাজ সুবিধাভােগী অভিজাত ও সুবিধাবঞ্চিত দরিদ্র কৃষক— এই দুটি শ্রেণিতে বিভক্ত ছিল।

21.নিহিলিস্ট’ কারা ?

উত্তর। নিহিলিস্ট’ হল রাশিয়ার এক চরমপন্থী গােষ্ঠী।

22 নিহিলিস্ট' শব্দটি কে, কোথায় প্রথম ব্যবহার করেন?

উত্তর ‘নিহিলিস্ট’ শব্দটি তুর্গেনেভ তার ফাদারস্ অ্যান্ড সনস্। উপন্যাসে প্রথম ব্যবহার করেন।

23.ডুমা' কী ?

24.নারদনিক আন্দোলন রাশিয়ায় কবে শুরু হয়?

উত্তর নারদনিক আন্দোলন রাশিয়ায় ১৮৭৪ খ্রিস্টাব্দে শুরু হয়। 

24.নারদ' কথার অর্থ কী?

উত্তর। নারদ কথার অর্থ হল জনগণ।

24.নারদনিক গােষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা কে ছিলেন?

উত্তর নারদনিক গােষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন আলেকজান্ডার হার্জেন। পাের্টসমাউথের সন্ধি কবে স্বাক্ষরিত হয়?

উত্তর পাের্টসমাউথের সন্ধি ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

27পাের্টসমাউথের সন্ধি কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়?

উত্তর পাের্টসমাউথের সন্ধি রাশিয়া ও জাপানের মধ্যে স্বাক্ষরিত

28.রক্তাক্ত রবিবার'-এর ঘটনাটি কোথায় ঘটেছিল?

উত্তর রক্তাক্ত রবিবার’-এর ঘটনাটি ঘটেছিল রাশিয়ার পেট্রোগ্রাড শহরে। 

29রক্তাক্ত রবিবার'-এর ঘটনা কত খ্রিস্টাব্দে ঘটেছিল?

উত্তর রক্তাক্ত রবিবার’-এর ঘটনা ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে ঘটেছিল।

30। সােভিয়েত' কী ?

উত্তর রাশিয়ার গ্রাম ও শহরের সাধারণ মানুষদের নিয়ে গঠিত পরিষদকে সােভিয়েত’ বলা হত।

31‘সােভিয়েত' কথার অর্থ কী ছিল?

উত্তর ‘সােভিয়েত' কথার অর্থ ছিল পরিষদ।

32.১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লব ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লবের ড্রেস রিহার্সাল'- কার উক্তি ?

উত্তর ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লব ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লবের ড্রেস রিহার্সাল'—এটি ট্রটস্কির উক্তি।

33. মির' কাদের বলা হত ?

উত্তর রাশিয়ার গ্রামীণ সমবায় সমিতিকে ‘মির’ বলা হত।

34.কুলাক' কাদের বলা হয়?

উত্তর রাশিয়ার নতুন জমিদার বা জোতদার শ্রেণিকে কুলাক’ বলা

35কার সংস্কারের ফলে রাশিয়াতে জোতদার প্রথা ব্যাপকভাবে চালু হয়?

উত্তর স্টোলিপিনের সংস্কারের ফলে রাশিয়াতে জোতদার প্রথা ব্যাপকভাবে চালু হয়।

361 স্টোলিপিন কত খ্রিস্টাব্দে নিহত হন ?

উত্তর। স্টোলিপিন ১৯১১ খ্রিস্টাব্দে নিহত হন।

37কোন কুখ্যাত সন্ন্যাসী দ্বিতীয় নিকোলাসের উপর ক্ষতিকর প্রভাব বিস্তার করেছিল ?

উত্তর রাসপুটিন দ্বিতীয় নিকোলাসের উপর ক্ষতিকর প্রভাব বিস্তার করেছিল।

38_ রুশদের কাছে স্বৈরাচারিতার চিত্র কারা তুলে ধরেন?

উত্তর রুশদের কাছে স্বৈরাচারিতার চিত্র তুলে ধরেন রাশিয়ার সাহিত্যিক ও দার্শনিকরা।

 39] বাকুনিন কে ছিলেন?

উত্তর। বাকুনিন ছিলেন রাশিয়ার নৈরাজ্যবাদী বিপ্লবী ব্যক্তিত্ব।

40 রাশিয়ায় কত খ্রিস্টাব্দে সােশ্যাল ডেমােক্র্যাটিক দল' প্রতিষ্ঠিত হয়?

উত্তর রাশিয়ায় ১৮৯৮ খ্রিস্টাব্দে ‘সােশ্যাল ডেমােক্র্যাটিক দল’ প্রতিষ্ঠিত হয়।

41 ‘সােশ্যাল ডেমােক্র্যাটিক দল’ কে প্রতিষ্ঠা করেন ?

উত্তর ‘সােশ্যাল ডেমােক্র্যাটিক দল’ প্রতিষ্ঠা করেন জর্জ প্লেখানভ।


নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়ের ২ নং প্রশ্ন উত্তর

বিংশ শতকের ইউরোপ 2 নং প্রশ্ন উত্তর


1.জারতন্ত্র’ বলতে কী বােঝাে ? /

উত্তর। ১৬১৩ খ্রিস্টাব্দে রাশিয়ার রােমানভ বংশের প্রতিষ্ঠা করেন মিখাইল রোমানভ। ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত প্রায় ৩০০ বছরের বেশি সময় ধরে রাশিয়া রােমানভ বংশীয় রাজতন্ত্রের শাসনাধীনে ছিল। এই

বংশের রাজারা সার্বভৌম শক্তির প্রতীকরূপে নিজেদের ‘জার’ বলে অভিহিত করতেন। এদের শাসনকাল জারতন্ত্র’ নামে পরিচিত।


2.জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডারকে ‘মুকিদাতা তান' বলা হয় কেন ?*

উত্তর জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডারের সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপুর্ণ সংস্কার ছিল ভূমিদাসপ্রথার বিলােপ। তিনি ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দের ৯ মার্চ (১৯ ফেব্রুয়ারি) আইন করে ভূমিদাসদের মুক্তি প্রদান করেন। তাই তাকে মুক্তিদাতা জার’ বলা হয়।


12 বলশেভিক ও মেনশেভিক কাদের বলা হয়?

উত্তর ১৮৯৮ খ্রিস্টাব্দে রাশিয়ায় কার্ল মার্কসের আদর্শে ‘সােশ্যাল ডেমােক্র্যাটিকদল প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯০৩ খ্রিস্টাব্দেমতপার্থক্যের জন্য এই দলটি বলশেভিক ও মেনশেভিক এই দু-ভাগে ভাগ হয়ে যায়। সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ বলশেভিক নামে পরিচিত হয়। আর সংখ্যালঘিষ্ট অংশ ‘মেনশেভিক’ নামে পরিচিত হয়।


16| মিরকাদের বলা হয় ?*

উত্তর রাশিয়ার গ্রামীণ সমবায় সমিতিকে মির’ বলা হয়। ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দে ভূমিদাস প্রথার অবসান ঘটিয়ে জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডার এদের উপর মুক্ত কৃষকদের ভূমির ভার ন্যস্ত করেন।


24 ডুমা কী ?

উত্তর।| ডুমা হল রাশিয়ার জাতীয় পরিষদ। জার দ্বিতীয় নিকোলাসের নির্দেশে রুশ জনগণ ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে এই পরিষদটি গঠন করেছিল।এই পরিষদ জারতন্ত্রের স্বৈরাচারকে কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করে জনগণের মনে সাংবিধানিক শাসন প্রবর্তনের আশা জাগ্রত করে। উল্লেখ্য ১৯০৬ খ্রিস্টাব্দে ডুমার প্রথম অধিবেশন বসে।


45 এপ্রিল থিসিস কী ?

উত্তর ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের ১৬ এপ্রিল লেনিন রাশিয়ায় বলশেভিক কর্মীদের সামনে তার যে বিখ্যাত কর্মধারা প্রকাশ করেন, তা ‘এপ্রিল থিসিস' নামে পরিচিত। তিনি বলেন, বলশেভিকদের জন্যই রাশিয়ায় জারতন্ত্রের অবসান ঘটেছে তাই রাষ্ট্রক্ষমতা তাদেরই প্রাপ্য। সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে সর্বহারা শ্রেণির একনায়কত্ব প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বলশেভিকরা ক্ষমতা পেলে সৈন্যরা শান্তি পাবে, কৃষকরা জমি পাবে, শ্রমিকরা রুটি পাবে।

63| কোন্ যুদ্ধকে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ’ বলা হয় এবং কেন?

উত্তর ইউরােপের ইতিহাসে ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দের যুদ্ধকে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ’ বলা হয়। কারণ এত ব্যাপক, ভয়াবহ ও সর্বগ্রাসী যুদ্ধ পৃথিবীতে এর আগে কখনও সংঘটিত হয়নি এবং বিশ্বের প্রায় সব দেশই এই যুদ্ধে প্রত্যক্ষ বা পরােক্ষভাবে যােগ দিয়েছিল। সেজন্য ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দের যুদ্ধকে ‘প্রথম বিশ্বযুদ্ধ’ বলা হয়।


65প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কাদের মধ্যে হয়েছিল।

উত্তরপ্রথম বিশ্বযুদ্ধ (১৯১৪-১৯১৮ খ্রি.) দুটি পক্ষের মধ্যে হয়েছিল। এই যুদ্ধের একপক্ষে ছিল ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, রাশিয়া,রােমানিয়া, চিন, জাপান ও পাের্তুগাল। এরা মিত্রশক্তি’ নামে পরিচিত। অপরপক্ষে ছিল জার্মানি, অস্ট্রিয়া, ইটালি, তুরস্ক ও বুলগেরিয়া। এরা অক্ষশক্তি’ বা ‘কেন্দ্রীয় শক্তি’ নামে পরিচিত। যদিও পরবর্তীকালে ইটালি ‘অক্ষশক্তি’ ত্যাগ করেছিল।


95 চেকা কি

উত্তর চেক হল রাশিয়ার এক গুপ্ত পুলিশবাহিনী। এর সাহায্যে

স্ট্যালিন প্রতিবিপ্লবীদের বিরুদ্ধে লাল সন্ত্রাস চালিয়েছিলেন।


99কালাে বৃহস্পতিবার কী ?*

উত্তর আমেরিকার অর্থনীতিতে ১৯২৯ খ্রিস্টাব্দের ২৪ অক্টোবর শেয়ার বাজারে এক বিরাট পতন ঘটে। ওই দিন বৃহস্পতিবার ছিল বলে আমেরিকাবাসী এই দিনটিকে 'কালাে বৃহস্পতিবার’নামে চিহ্নিত করে


106 NEP বা লেলিনের নতুন তার্থনৈতিক নীতি' বলতে রীবােঝায় ?উত্তর লেনিন বাস্তব প্রয়ােজনে ও রাশিয়ার বিশেষ অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে মার্কসবাদ থেকে কিছুটা সরে এসে যে অর্থনৈতিক নীতি গ্রহণ করেন, তা নতুন অর্থনৈতিক নীতি’ (New Economic Policy)

বা সংক্ষেপে NEP নামে পরিচিত। ১৯২১ খ্রিস্টাব্দে কমিউনিস্ট পার্টির দশম অধিবেশনে এই নীতি গৃহীত হয়। এই নীতি অনুসারে| ছােটো ছােটো জমির মালিকদের জমি ফিরিয়ে দেও] হয়। ছােটো ও মাঝারি শিল্পপতিদের উপর থেকে সরকারি নি। তুলে ব্যক্তিমালিকানা স্বীকার করা হয়।


107 লেনিনের নয়া অর্থনীতির বৈশিষ্ট্য কী ছিল ?

উত্তর লেনিন ১৯২১ খ্রিস্টাব্দে তাঁর নয় অর্থনীতি ঘােষণা করেন।এই ঘােষণায় বলা হয় যে--

কৃষকদের উদ্বৃত্ত ফসল কেড়ে নেওয়া হবে না। রাষ্ট্রের কর্তৃত্বাধীন জমিতে কৃষকদের মালিকানা থাকবে।


3। ছােটো ও মাঝারি শিল্পগুলিতে ব্যক্তিমালিকানা বজায় থাকবে বৈদেশিক বাণিজ্য সরকারের হাতে এবং অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য ব্যক্তিগত হাতে থাকবে।

120| কালাে কুর্তা’ নামে কারা পরিচিত ?*

উত্তর ইটালিতে ফ্যাসিস্ট দলের সদস্যরা কালাে পােশাক পরে আধা-সামরিক কায়দায় কুচকাওয়াজ করত। এই কারণে ফ্যাসিস্টরা কালাে কুর্তা’ নামে পরিচিত হয়।

122) ভাইমার প্রজাতন্ত্র’ কী ?

উত্তর প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অবসানের পর জার্মানির বিশিষ্ট সমাজতান্ত্রিক নেতা ফ্রেডরিখ ইবার্ট-এর নেতৃত্বে সােশ্যালিস্ট রিপাবলিকান দল রাজতন্ত্রের অবসান ঘটিয়ে জার্মানিতে সাময়িকভাবে একটি সরকার প্রতিষ্ঠা করে। বার্লিনের নিকটবর্তী ভাইমার শহরে এই প্রজাতান্ত্রিক সরকারের কর্মকেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হয় বলে এই প্রজাতন্ত্রকে ভাইমার প্রজাতন্ত্র বলা হয়।


134 নেত্ব গৃহযুদ্ধ কী ?

উত্তর স্পেনের দুর্বল প্রজাতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দে সেনাপতি ফ্রাঙ্কোর নেতৃত্বে যে ভয়াবহ সংঘর্ষের সূচনা হয়, তা 'স্পেনের গৃহযুদ্ধ নামে খ্যাত। দীর্ঘদিন যুদ্ধ চলার পর ১৯৩৯ খ্রিস্টাব্দে জ্ঞে স্পেনে প্রজাতন্ত্রের উচ্ছেদ ঘটিয়ে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন।


139 স্পেনে গৃহযুদ্ধ কেন ঘটেছিল ?*

উম ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দের নির্বাচনে জয়লাভ করে বামপন্থীরা স্পেনে। প্রকার গঠন করে। সরকারের প্রতি আনুগত্যের অভাব সন্দেহ করে বামপন্থীরা বহু সামরিক কর্মচারীকে পদচ্যুত করেন ও বহুজনকে বলপূর্বক অবসর নিতে বাধ্য করেন। রাজতন্ত্রের সমর্থক সন্দেহে অনেককে দূরবর্তী স্পেনীয় উপনিবেশে বদলির ব্যবস্থাও করা হয়। এর ফলে যাজক, উগ্র প্রজাতন্ত্রী ও রাজতন্ত্রী বিক্ষুব্ধ সেনাবাহিনীকে

উসকানি দিলে ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দে জেনারেল ফ্রাঙ্কোর নেতৃত্বে সামরিক বাহিনী বিদ্রোহ করে।



বিশ শতকে ইউরোপ 4 নম্বরের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর

নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়ের ৪ নং প্রশ্ন উত্তর

বিংশ শতকের ইউরোপ 4 নং প্রশ্ন উত্তর


11| ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে রাশিয়ায় নভেম্বর বিপ্লবের (November Revolution) কারণ কী ছিল ?

উত্তর ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের ১৬ মার্চ বিপ্লবের মাধ্যমে জারতন্ত্রের পতন ঘটে। অস্থায়ী প্রজাতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়। এই সরকার বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ব্যর্থ হলে অস্থায়ী সরকারের পালাবদল হয়। শেষে

লেনিনের নেতৃত্বে রাশিয়ায় নভেম্বর বিপ্লব ঘটে (৭ নভেম্বর, ১৯১৭খ্রি.)।

নভেম্বর বিপ্লব (November Revolution) : ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের মার্চ বিপ্লবের ফলে রাশিয়ায় জারতন্ত্রের অবসান ঘটলেও নগণের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়নি। ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের নভেম্বর বিপ্লব’বা বলশেভিক বিপ্লব’ (Bolshevik Revolution)-এর ফলে রুশ বিপ্লব’ সম্পূর্ণ হয়। ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের মার্চ বিপ্লবের ফলে সম্পত্তির ভিত্তিতে ভােটাধিকারের দ্বারা নির্বাচিত ডুমা (Duma)-রবুর্জোয়া সদস্যরা একটি অস্থায়ী প্রজাতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করে। রাশিয়ার বলশেভিক দল এই সরকারকে মেনে নেয়নি। তারা রাশিয়ার গ্রাম ও শহরের সাধারণ মানুষকে নিয়ে যে সােভিয়েত (Soviet) বা পরিষদ গঠন করেছিল, সেই সােভিয়েতগুলির হাতে ক্ষমতার হস্তান্তর চেয়েছিল।

প্রজাতান্ত্রিক সরকারের প্রতি জনগণের ক্ষোভের কারণ: ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে মার্চ বিপ্লবের ফলে প্রতিষ্ঠিত রাশিয়ার প্রজাতান্ত্রিক সরকারের প্রতি জনগণের মনে অসন্তোষ ও ক্ষোভ জমেছিল। কারণ—

[1] কৃষকদের ক্ষোভ : কৃষকরা আশা করেছিল যে রাশিয়ার আমূল ভূমিসংস্কার হবে, কুলাক প্রথার অবসান ঘটবে এবং তারাজমি পাবে। কিন্তু কৃষকরা তা পায়নি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে সৈনিক হিসেবে অনেক কৃষককে যুদ্ধে যেতে হয়েছিল। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ থাকায় জার্মানবাহিনীর হাতে তারা দলে দলে মারা যায়। এই ঘটনায় কৃষকশ্রেণি ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।

2। শ্রমিকদের ক্ষোভ ; মার্চ বিপ্লবের ফলে গঠিত প্রজাতান্ত্রিক সরকারের কাছে শ্রমিকদের আশা ছিল যে, তাদের বেতন বৃদ্ধি হবে এবং কাজের সময়সীমা ৮ ঘণ্টা নির্ধারিত হবে। শ্রমিকদের এই চাহিদা পূরণ হয়নি বলে শ্রমিকরাও সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল।

3. সেনাবাহিনীর ক্ষোভ: রাশিয়ার সেনাবাহিনী ও তাদের পরিবারেরা আশা করেছিল সরকার যুদ্ধ বন্ধ করবে এবং শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে। কিন্তু প্রজাতান্ত্রিক সরকার যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার পক্ষপাতী ছিল।

ফলে সেনাবাহিনী ও তাদের পরিবার-পরিজনরা সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়েছিল।

4. | অ-বুশ জনগণের অসন্তোষ : রাশিয়ায় অনেক অ-রুশ জনগণ বসবাস করত। তারা আশা করেছিল সরকার তাদের স্বাটা|সন। দেবে। কিন্তু তাদের আশা পুরণ হয়নি।

5। বলশেভিকদের ভূমিকা { লেনিনের নেতৃত্বে বলশেভিক দিন বিভি শাখা সংগঠন এবং সােভিয়েত প্রতিষ্ঠা করেছিল। লেনিন 'এপ্রিল থিসিস’ ঘােষণা করেন ১৬ এপ্রিল, ১৯১৭ খ্রিষ্টাবে এবং সমস্ত

ক্ষমতা সােভিয়েত এর হাতে সমর্পণের দাবি ওঠে। এইভাবে লেনিন তার অসাধারণ নেতৃত্বের দ্বারা প্রতিকুল পরিস্থিতি কে অনুকুলে আনেন। অনুগত লাল ফৌজ এবংসােভিয়েতগুলির সাহায্যে রাশিয়ার রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করলে নভেম্বর, ১৯১৭ খ্রি.) নভেম্বর বিপ্লব সফল হয়।


25 টীকা লেখাে : প্যারিসের শান্তি সম্মেলন

উত্তর

১৯১৮ খ্রিস্টাব্দের ১১ নভেম্বর জার্মানির আত্মসমর্পণের পর প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অবসান ঘটে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অবসানের পর ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দের ১৮ জানুয়ারি প্যারিস সম্মেলনে বিজয়ীপক্ষের ৩২টি দেশের

প্রতিনিধিগণ সমবেত হন।

প্যারিস সম্মেলনে যােগদানকারী রাষ্ট্র: প্যারিস সম্মেলনে যােগদানকারী রাষ্ট্রগুলি ছিল ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, আমেরিকা, ইটালি, পােল্যান্ড, বেলজিয়াম, চেকোশ্লোভাকিয়া, যুগােশ্লাভিয়া, চিন, জাপান, গ্রিস ইত্যাদি।

প্যারিস সম্মেলনে সমবেত নেতৃবৃন্দের মধ্যে সম্মেলনের প্রকৃত নিয়ন্তা চারজন রাষ্ট্রপ্রধান হলেন—

1. আমেরিকার রাষ্ট্রপতি উড্রো উইলসন (Woodrow Wilson),

2 | ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লয়েড জর্জ (Lloyd George),

3.। ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জর্জ ক্লেমেনশো (George Clemenceau),

4। ইটালির প্রধানমন্ত্রী ভিট্টোরিও অ্যান্ডাে (Vitorio Orlando)।

এরা চার প্রধান বা ‘বিগ ফোর’ (Big Four) নামে পরিচিত। ছিলেন এই সম্মেলন সভাপতি ছিলেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী ক্ল্মম্ 



26| টীকা লেখাে : ভার্সাই সন্ধি (Treaty of Versal|les,১৯১৯ খ্রি:।* (9

উত্তর ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অবসানের পর বিজয়ী মিত্রপক্ষ ও পরাজিত জার্মানির মধ্যে ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দের ২৮ জুন ভার্সাই সন্ধি স্বাক্ষরিত হয়। ভার্সাই সন্ধির শর্তগুলি ১৫ ভাগে ভাগ করে ২৩০ পৃষ্ঠায় ৪৪০টি ধারায় রচনা করে জার্মানির উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়।

 সন্ধির উদ্দেশ্য : ভার্সাই সন্ধির উদ্দেশ্য ছিল— জার্মানিকে চিরতরে পঙ্গু করে রাখা।

[2 | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে মিত্রপক্ষের ক্ষয়ক্ষতি জার্মানির কাছ থেকে আদায় করা।

ও ভার্সাই সন্ধির শর্ত : ভার্সাই সন্ধির শর্তগুলিকে ভূখণ্ড সম্পর্কিত, @) অর্থনৈতিক ও সামরিক ইত্যাদি ভাগে ভাগ করে আলােচনা করা যেতে পারে।

1 ভূখণ্ড-সম্পর্কিত শর্ত :ভার্সাই সন্ধির ভূখণ্ড-সম্পর্কিত শর্তাবলি হল- ® ফ্রান্সকে আলসাস ও লােরেন; বেলজিয়ামকে ইউপেন, মেলমেডি, মরেসনেট; লিথুয়ানিয়াকে মেমেলবন্দর দিতে হবে। @ নবগঠিত স্বাধীন পােল্যান্ডকে পােজেন,পশ্চিম প্রাশিয়া এবং জার্মানির মধ্যে ২৬০x৪০ মাইল

ভূহ(পােলিশকরিডাের) পােল্যান্ডকে সমুদ্রপথে যােগাযােগের জন্য ছেড়ে দিতে হবে।

2 অর্থনৈতিক শর্ত ; জার্মানির উপর ভার্সাই সন্ধির অর্থনৈতিক শর্তাবলি ছিল— ১৯২১ খ্রিস্টাব্দের ১ মে-রমধ্যে জার্মানিকে ১০০ কোটি পাউন্ড মূল্যের ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে হবে; যদিও পরবর্তীকালে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ৬৬০ কোটি পাউন্ড ধার্য করা হয়। @ জার্মানির খনিজসম্পদ ও শিল্পসমৃদ্ধ অঙুলগুলি, যথা- রূঢ়, সার প্রভৃতি অল অধিগ্রহণ করা হবে।

সামরিক শর্ত ; ভার্সাই সুব্বিতে জার্মানির উপর আরােপিত সামরিক শর্তগুলি হল— ও জার্মানির সামরিক ব্যবস্থা ভেঙে দিয়ে কেবল অভ্যন্তরীণ শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য ১লক্ষ সৈন্য রাখা হবে। @ জার্মানিতে বাধ্যতামূলক সামরিক শিক্ষা বাতিল করতে হবে। বিশ্ব ইতিহাসে বহু সমালােচিত ও নিন্দিত সন্ধি হল ভার্সাই সন্ধি। একে জবরদস্তিমূলক সন্ধি’ (Dictated Peace) বলে। অভিহিত ব্রা হয়। ঐতিহাসিক ই এইচ কার (E H Cart) বলেছেন, ভার্সাই সন্ধির মধ্যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বীজ নিহিত ছিল (TheTreaty of Versailles sowed the seeds of World War II)


30 (উড্রো উইলসন-এর ‘চোদ্দো দফা নীতি ঘােষণার প্রেক্ষিত বা পটভূমি সংক্ষেপে আলােচনা করাে। 8 (9

উত্তর উড্রো উইলসন ছিলেন আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ২৮তম রাষ্ট্রপতি। তিনি ছিলেন সৎ ও আদর্শবাদী। তিনি বিশ্বের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করে বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠা করার জন্য তাঁর বিখ্যাত ‘চোদ্দো দফা নীতি ঘােষণা করেন।

উড্রো উইলসনের চোদ্দো দফা নীতি ঘােষণার প্রেক্ষিত :

উড্রো উইলসনের সততা :আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি উড্রো উইলসন ছিলেন সৎ ও আদর্শবাদী।

[2] যুদ্ধের উদ্দেশ্য সম্পর্কে উইলসনের অভিমত : ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দের ২ এপ্রিল উড্রো উইলসন যুদ্ধের আদর্শ ঘােষণা করে বলেছিলেন যে, কোনােরকম স্বার্থ চরিতার্থ করা আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমাদের উদ্দেশ্য হল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য বিশ্বের নিরাপত্তা বিধান করা। রাজনৈতিক স্বাধীনতার উপর বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠা করা এবং মানবাধিকার রক্ষা করা। কোনাে রাজ্যগ্রাস বা প্রভুত্ব স্থাপন আমাদের উদ্দেশ্য নয়। এটি ছিল মিত্রপক্ষের যুদ্ধের আদর্শ ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে প্রথম ঘােষণা।

3 লয়েড জর্জের ঘােষণা : ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী লয়েড জর্জ ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দের ৫ জানুয়ারি ঘােষণা করেন যে, জার্মান সাম্রাজ্য, তুরস্ক সাম্রাজ্য বা অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি সাম্রাজ্য ধ্বংস করা বা দখল করা

আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমাদের উদ্দেশ্য হল শান্তি প্রতিষ্ঠা করা।

4। উইলসনের চোদ্দো দফা ঘােষণা : লয়েড জর্জের ঘােষণার তিন দিন পর ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দের ৮ জানুয়ারি উড্রো উইলসন মার্কিন কংগ্রেসে স্থায়ী বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠা ও গণতন্ত্র রক্ষার জন্য তাঁর বিখ্যাত 14 দফা নীতি ঘোষণা করেছে


(50)স্পনের গৃহযুদ্ধ (Spanish Civil War) সম্বন্ধে কী জান?

উত্তর স্পেনীয় রাজতন্ত্রের দুর্বলতা স্পেনকে রাজনৈতিক ক্ষমতা দখলের প্রতিযােগিতার ক্ষেত্রে পরিণত করে। রাজা আলফানসের ক্ষমতাচ্যুতি, রিভেরার সামরিক একনায়কত্ব, প্রজাতন্ত্রী ও সমাজতন্ত্রীদের

নির্বাচনী সাফল্য এবং দক্ষিণপন্থী জোটের প্রতিক্রিয়া স্পেনের রাজনীতিতে অস্থিরতার সৃষ্টি করে। এই পরিস্থিতিতে পপুলার ফ্রন্ট ও ফ্যাসিবাদী সেনাপতিফ্রাঙ্কোর প্রতিযােগিতা স্পেনে গৃহযুদ্ধের সূচনা

করে (১৯৩৬-১৯৩৯ খ্রি.)।

কারণ : ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দের নির্বাচনে জয়লাভ করে বামপন্থীগণ স্পেনে সরকার গঠন করে। ক্ষমতায় আসীন হয়ে এই দল বহু সামরিক কর্মচারীকে পদচ্যুত করে। এমনকি রাজতন্ত্রের সমর্থকসন্দেহে অনেককে বহুদূরে স্পেনীয় উপনিবেশে বদলি করে দেওয়া হয়। এর ফলে বামপন্থী সরকারের বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীসহ অনেকের মনেই ক্ষোভের সঞ্চার হয়। ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দে জেনারেল ফ্রাঙ্কো (General Franco)-র নেতৃত্বে সামরিক বাহিনী বিদ্রোহ ঘােষণা করলে এই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটে এবং স্পেনে গৃহযুদ্ধের সূচনা হয়।


গৃহযুদ্ধ : স্পেনের নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকার যা ‘পপুলার ফ্রন্ট' নামে পরিচিত তার বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ স্পেনীয় সেনাদের নেতা। জেনারেল ফ্রাঙ্কো বিদ্রোহের পতাকা তােলেন। এই ঘটনাকে সীমাবদ্ধ।

রাখার জন্য বিশ্বের ২৭টি দেশ নিরপেক্ষতার নীতি গ্রহণ করে। কিন্তু জার্মানি ও ইটালির দ্বারা সমর্থিত ফ্রাঙ্কো সােভিয়েত ইউনিয়নের দ্বারা | সমর্থিত পপুলার ফ্রন্ট সরকারকে পরাজিত করে। নতুন মারণাস্ত্রের।

পরীক্ষানিরীক্ষা হয় এই যুদ্ধের মাধ্যমে এবং ব্যাপক প্রাণহানি ঘটে।। এজন্য স্পেনীয় গৃহযুদ্ধকে ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের মহড়া’ বলে। শেষে। ফ্রাঙ্কোর নেতৃত্বে স্পেনে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয় জড়িয়ে পড়ে। এই যুদ্ধের ব্যাপকতার ফলে জাতিসংঘের আদর্শের

গুরুত্ব : স্পেনের গৃহযুদ্ধে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বহু রাষ্ট্র। অসারতা প্রমাণিত হয়। সর্বোপরি স্পেনে ফ্রাঙ্কোর ফ্যাসিস্ট সরকার। জয়লাভ করায় পশ্চিম ইউরােপে ফ্যাসিবাদী প্রভাব পড়ে।


পঞ্চম অধ্যায় বিশ শতকে ইউরোপ বড় প্রশ্ন উত্তর,

নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়ের ৮ নং প্রশ্ন উত্তর

বিংশ শতকের ইউরোপ 8 নং প্রশ্ন উত্তর


13 উড্রো উইলসনের (woogrow wison) চোদ্দো দফা নীতি’ (Fourteen Points)-র প্রেক্ষিত কী ছিল ? ‘চোদ্দো দফান বর্ণনা করাে।*

উত্তর উড্রো উইলসন (Woodrow Wilson) ছিলেন আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ২৮তম রাষ্ট্রপতি। তিনি ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দের ৮ জানুয়ারি বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে তাঁর বিখ্যাত ‘চোদ্দো দফা নীতি’ (Fourteen Points) ঘােষণা করেন।

উদ্দেশ্য : তার এই চোদ্দো দফা নীতির প্রেক্ষাপট রচিত হয়েছিল নিম্নলিখিত কারণে

[1| যুদ্ধের বিশ্বব্যাপী প্রসার : বিশ্বযুদ্ধ ইউরােপ অতিক্রম করে পশ্চিম এশিয়া, উত্তর আফ্রিকা, আটল্যান্টিক ও প্রশান্ত মহাসাগর অণ্ডলে প্রসারিত হয়েছিল। ফলে যুদ্ধের নৃশংসতা ও ব্যাপকতা বিশ্বজনীন মাত্রা নেয়। এই প্রেক্ষিতেই আন্তর্জাতিক স্তরে বিশ্ব নিরাপত্তা ও শান্তির দাবি জোরদার হয়ে ওঠে।

যুক্তরাষ্ট্রের যােগদান : জার্মানির অবরােধ নীতি ও ডুবােজাহাজ ব্যবহারের ব্যাপকতার কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রথম বিশ্বযুদ্ধে যােগদান করেছিল। রাষ্ট্রপতি উড্রো উইলসন মানবাধিকার ও গণতন্ত্র রক্ষার উড্রো উইলসন

আদর্শসহ বিশ্বনিরাপত্তা বিধানের আদর্শও ঘােষণা করেছিলেন (২ এপ্রিল, ১৯১৭ খ্রি.)।

* উড্রো উইলসনের চোদ্দো দফা নীতি : উড্রো উইলসন কর্তৃক ঘােষিত চোদ্দো দফা নীতি’র শর্তগুলি হল- আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে গােপন চুক্তি ত্যাগ করে প্রকাশ্য আলােচনার মাধ্যমে শান্তিচুক্তি প্রণয়ন করতে হবে। প্রত্যেক দেশের সমুদ্রের উপকূল অংশ ছাড়া বাকি অংশ যুদ্ধ বা শান্তির সময় সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

3। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বৃদ্ধি করতে হবে।

৭। প্রত্যেক দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার প্রয়ােজন ছাড়া বাকি অস্ত্রশস্ত্র হ্রাস করতে হবে।

কোনাে দেশের ঔপনিবেশিক অধিকার পুনর্বিবেচনার সময় ওই দেশের জনগণের স্বার্থের কথা বিবেচনা করতে হবে।

রাশিয়া থেকে বিদেশি সৈন্য সরিয়ে নিতে হবে এবং রাশিয়াকে তার অধিকৃত অঞ্চল ফিরিয়ে দিতে হবে।

বেলজিয়ামের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিতে হবে।

৪| আলসাস ও লােরেন প্রদেশ দুটি ফ্রান্সকে ফিরিয়ে দিতে হবে।

9ি | জাতীয়তার ভিত্তিতে ইটালির সীমানা নির্ধারণ করতে হবে।

10] অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি সাম্রাজ্যের অধিবাসীদের স্বায়ত্তশাসন দিতে হবে।

11| রােমানিয়া, সার্বিয়া, মন্টিনিগ্রো প্রভৃতি বলকান দেশগুলির পুনর্গঠন করতে হবে।

12| তুর্কি সাম্রাজ্যভুক্ত অ-তুর্কি জাতিগুলিকে স্বায়ত্তশাসন দিতে হবে।

13 স্বাধীন পােল্যান্ড রাষ্ট্র গঠন করতে হবে তৎকালীন সংবাদপত্রে চোদ্দো দফা' নীতি

14 | বিশ্বশান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার জন্য একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা গঠন করতে হবে।


মূল্যায়ন : বিখ্যাত ১৪ দফা নীতির সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রপতি উড্রো উইলসনের নাম জড়িত থাকলেও তিনি এই নীতির উদ্ভাবক ছিলেন না। ইংরেজ সেনাপতি জেনারেল স্মাট ও লর্ড ফিলিমাের এই নীতির উদ্ভাবক ছিলেন। উইলসন তা গ্রহণ করে ব্যাপক মাত্রায় প্রচার করেন। এই নীতি পরাভূত জাতিগােষ্ঠীর আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকার প্রতিষ্ঠার কথা বলে। এই নীতির ভিত্তিতে পােল্যান্ড পুনর্গঠিত হয় এবং

চেকোশ্লোভাকিয়ার সৃষ্টি হয়। আঞ্চলিক পুনর্গঠন করা হয়। কিন্তু তা প্রয়ােগ করা হয়েছিল পরাজিত জার্মানি, অস্ট্রিয়া ও তুরস্কের উপর। বিজয়ী শক্তিবর্গ নিজেদের ক্ষেত্রে তা প্রয়ােগ করেনি। বিশ্বশান্তি রক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক সংগঠন হিসেবে জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠা হলেও তার মধ্যে ভার্সাই সন্ধির কিছু ধারা সংযােজিত হয়। এইজন্য আমেরিকা জাতিসংঘের সদস্যপদ ত্যাগ করে।


c



[TAG]:   বিশ শতকে ইউরোপ পঞ্চম অধ্যায়pdf, বিশ শতকে ইউরোপ mcq,পঞ্চম অধ্যায় বড় প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণি,নবম শ্রেণির ইতিহাস,নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়,নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায়ের ২ নং প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় বড় প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণির ইতিহাস পঞ্চম অধ্যায় প্রশ্ন উত্তর,




Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url