BREAKING

আপনার যা প্রয়োজন এখানে সার্চ করুন

বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ, ২০২২

ভাঙার গান নবম শ্রেণির বাংলা কবিতার গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর |নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা ভাঙার গান প্রশ্ন উত্তর PDF

ভাঙার গান নবম শ্রেণির বাংলা কবিতার গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর |নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা  ভাঙার গান প্রশ্ন উত্তর PDF |Class 9 Bengali Kobita question in bengali  pdf


আজ আমি তোমাদের জন্য নিয়ে এসেছি নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা ভাঙার গান প্রশ্ন উত্তর PDFclass 9 Bengali Kobita question Pdf | WB Class nine Bengali question pdf |WBBSE পরীক্ষা প্রস্তুতির জন্য নবম শ্রেণি বাংলা কবিতার গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর pdf গুরুত্বপূর্ণ ভাবে তোমাকে সাহায্য করবে।


তাই দেড়ি না করে এই পোস্টের নীচে দেওয়া Download লিংকে ক্লিক করে |নবম শ্রেণি বাংলা কবিতা ভাঙার গান গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর pdf download । Class ix Bengali Kobita Question Pdf  ডাউনলোড করো । এবং প্রতিদিন বাড়িতে বসে প্রাক্টিস করে থাকতে থাক।ভবিষ্যতে আরো গুরুত্বপূর্ণ Note ,Pdf ,Current Affairs,ও প্রতিদিন মকটেস্ট দিতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।


‘ভাঙার গান’ নবম শ্রেণির বাংলা কবিতাের প্রশ্ন উত্তর নিচে দেওয়া হলো।


ভাঙার গান mcq প্রশ্ন

1.

2.


নবম শ্রেণি বাংলা কবিতা  1 নম্বরের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর [একটি বাক্যে উত্তর দাও]

নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা  ভাঙার গান 1 নং প্রশ্ন উত্তর

১.‘ভাঙার গান' রচনাংশটি মূলগ্রন্থে কী নামে সংকলিত হয়েছিল?

উত্তর: ‘ভাঙার গান রচনাংশটি মূলগ্রন্থে ভাঙার গান নামে সংকলিত হয়েছে।

২. “কারার ওই লৌহকপাট”-লৌহকপাট কথার অর্থ কী?

উত্তর: ‘লৌহ-কপাট' কথার অর্থ লােহার তৈরি দরজা।

৩, “কারার ওই লৌহ-কপাট/ভেঙে ফেল, কররে লােপাট”—কবি কাদের এই আহবান জানিয়েছেন?

উত্তর: পরাধীন ভারতে তরুণ বিপ্লবী বীরদের প্রতি কবি এই আহ্বান

জানিয়েছেন।

8, ‘কারার ওই লৌহ-কপাট’-কে কবি কেন ভেঙে ফেলতে বলেছেন?

উত্তর: স্বাধীনতা সংগ্রামী বীর বিপ্লবীদের কারাগার থেকে মুক্ত করে তাদের অসম্পূর্ণ কাজকে সম্পূর্ণ করার জন্য কবি লৌহকপাট ভেঙে ফেলতে বলেছেন |

৫. ‘শিকল-পুজোর পাষাণ-বেদী’-তে কাদের রক্ত জমাট হয়ে আছে?

[আরামবাগ হাই স্কুল

উত্তর: ব্রিটিশ সরকার দ্বারা অত্যাচারিত ভারতের বীর সন্তান স্বাধীনতাসংগ্রামীদের রক্ত জমাট হয়ে আছে |

৬. “ওরে ও তরুণ ঈশান!”-“তরুণ ঈশানকে কবি কী করতে বলেছেন?

উত্তর: তরুণ ঈশানকে কবি প্রলয় বিষাণ অর্থাৎ ধবংস ঘােষণাকারী শিঙা বাজাতে বলেছেন।

৭, “ওরে ও তরুণ ঈশান!—'তরুণ ঈশান' বলতে কবি প্রকৃতপক্ষে কাদের বুঝিয়েছেন?

উত্তর: 'তরুণ ঈশান’ বলতে কবি প্রকৃতপক্ষে ভারতমাতার বীর সন্তান স্বাধীনতা সংগ্রামীদের বুঝিয়েছেন।

৮, “ঈশান’ শব্দের দুটি অর্থ লেখাে | [বহরমপুর কে এন কলেজ স্কুল]

উত্তর: ঈশান’ শব্দের অর্থ শিব। অন্যদিকে, ‘ঈশান’ হল উত্তর-পূর্ব দিক, যা দশটি দিকের একটি।

9.“ওরে ও তরুণ ঈশান! /বাজা তাের প্রলয়-বিষাণ’—কবি কেন তরুণ জানকে প্রলয়-বিষাণ বাজাতে বলেছেন?

উত্তর: ইংরেজদের কারাগারে স্বদেশের মুক্তিযােদ্ধারা বন্দি থাকায় সেইসব কারাগার ভেঙে ফেলার জন্যই কবি প্রলয়-বিষাণ বাজাতে বলেছেন।

১০, “ধবংস-নিশান,/উড়ুক প্রাচী’র প্রাচীর ভেদি |”—কীসের ‘ধধ্বংস- নিশান’?

উত্তর: স্বাধীনতাকামী বহু বীর বিপ্লবীকে ইংরেজ সরকার কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। সেইসব কারাগার ধবংস করে নিশান ওড়াতে হবে।

১১. “গাজনের বাজনা বাজা!”–গাজনের বাজনা’ কী?

উত্তর: চৈত্রের শেষে শিবের গাজন উৎসবের সময়ে ঢাক, ঢােল, কঁাসর, বাশি ইত্যাদির মিলিত বাজনা হল গাজনের বাজনা |

১২. “কে দেয় সাজা/মুক্ত স্বাধীন সত্যকে রে?”—‘মুক্ত স্বাধীন সত্য' কী?

[শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল হাই স্কুল

উত্তর: ‘মুক্ত স্বাধীন সত্য' হল স্বাধীনতা ভারতবাসীর জন্মগত অধিকার এবং তারা তা অর্জন করবেই |

১৩, “ভগবান পরবে ফঁাসি?”—‘ভগবান’ বলতে কবি কাকে বা কাদের বুঝিয়েছেন? 

উত্তর: এখানে ‘ভগবান' বলতে কবি মৃত্যুঞ্জয়ী বীর বিপ্লবীদের, যাঁরা স্বদেশের স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করেছেন, তাঁদের বুঝিয়েছেন।

১৪, “ভগবান পরবে ফঁাসি?”-ভগবান ফাসি পরবে কেন?[ফালাকাটা হাই স্কুল]

উত্তর: সাম্রাজ্যবাদী শাসকদের অত্যাচারের প্রতিবাদ ও স্বাধীনতার জন্য আন্দোলনের কারণেই ‘ভগবান' অর্থাৎ স্বাধীনতা সংগ্রামীদের ফাসি হয়।

১৫, “শিখায় এ হীন তথ্য কে রে?”—‘হীন তথ্য বলতে কী বােঝানাে[সুনীতি একাডেমি

হয়েছে?

উত্তর: ভগবানের মতাে অমর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের ফাঁসি দিয়ে তাদের স্বপ্নকে ধবংস করা যায়—এটাই হল হীন তথ্য।

১৬. “হা হা হা পায় যে হাসি”—কবির হাসি পাওয়ার কারণ কী?[মহিষাদল রাজ হাই স্কুল]

উত্তর: কবির হাসি পাওয়ার কারণ হল অত্যাচারী ইংরেজ শাসক ভগবানতুল্য মৃত্যুঞ্জয়ী বিপ্লবীদের ফাঁসি দিতে চায়।)

১৭, “ভগবান পরবে ফাসি?”-কে ভগবানকে ফাসি দিতে চায়?

উত্তর: অত্যাচারী ইংরেজ শাসক ভগবানকে ফাসি দিতে চায়।

1/“ওরে ও পাগলা ভােলা, /দে রে দে প্রলয়-দোলা”—‘পাগলা ভােলা’ কীভাবে প্রলয় দোলা দেবে?

উত্তর: গারদগুলাে সজোরে ধরে হ্যাচকা টান মেরে ‘পাগলা ভােলা’ প্রলয় দোলা দেবে।

2.‘মার হাঁক হৈদরী হক”—“হৈদী হক’ বলতে কী বােঝানাে হয়েছে?[সারগাছি রামকৃয় মিশন হাই স্কুল; হিন্দু স্কুল]

উত্তর: হজরত মহম্মদের জামাতা হায়দার যেমন শত্রুর উদ্দেশে হাড় হিম করা হক দিতেন, তেমন হককে বােঝানাে হয়েছে |

৩. “মৃত্যুকে ডাক জীবন পানে!”—কে ডাকবে?

উত্তর: ‘পাগলা ভােলা' অর্থাৎ তরুণ স্বাধীনতা সংগ্রামীরা মৃত্যুকে তাদের জীবনে ডাকবে অর্থাৎ হাসিমুখে বরণ করে নেবে।

8. “নাচে ওই কাল-বােশেখি,”——‘কাল বােশেখি’ কীসের প্রতীক?

উত্তর: ‘কাল-বােশেখি’ অর্থাৎ কালবৈশাখী ঝড় একইসঙ্গে ধবংস ও সৃষ্টির প্রতীক ||



ভাঙার গান 3 নম্বরের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর

নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা ভাঙার গান 3 নং প্রশ্ন উত্তর


১.“কারার ওই লৌহকপাট/ভেঙে ফেল, কররে লােপাট'--এই আহ্বানের প্রেক্ষাপট ব্যাখ্যা করাে।

উত্তর: পরাধীন ভারতকে বিদেশি শক্তির বাঁধন থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য কবি তরুণ বিপ্লবী শক্তিকে আহ্বান জানিয়েছেন। অত্যাচারী ইংরেজ শাসক দেশপ্রেমী স্বাধীনতা সংগ্রামীদের যে কারাগারে আটকে রেখেছে বা রাখতে চায় সেই সমস্ত কারাগারের লৌহকপাট ভেঙে ফেলার আহ্বান জানিয়েছেন কবি।


2.“রক্ত-জমাট/শিকল-পুজোর পাষাণ-বেদী!'—পঙক্তিটির অন্তর্নিহিতঅর্থ বুঝিয়ে দাও |

উত্তর: পরাধীন ভারতবর্ষে অত্যাচারী ইংরেজ শাসক স্বাধীনতা সংগ্রামী ভারতীয়দের কারাগারে বন্দি করে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল। এই ভাবে তারা দমন করতে চেয়েছিল সশস্ত্র স্বাধীনতা সংগ্রামকে | শােষক ইংরেজদের অত্যাচারে বিপ্লবীদের অনেক রক্ত ঝরেছে। কারাগারে লেগেছে সেই রক্ত। আর বিপ্লবীদের রক্ত লেগে থাকা সেই কারাগারই কবির কাছে হয়েছে দেশমাতার পূজার পাষাণ বেদি, যাতে শহিদের রক্ত জমাট হয়ে আছে।


3.“ওরে ও তরুণ ঈশান! /বাজা তাের প্রলয়-বিষাণ”—তরুণ ঈশান প্রলয় বিষাণ বাজাবে কেন?

উত্তর: ‘ঈশান’ হলেন ধ্বংস ও সৃষ্টির দেবতা শিব| জরাজীর্ণকে, অশুভকে বিনাশ করার জন্য তিনি যখন প্রলয় নৃত্য করেছিলেন, তার আগে বাজিয়েছিলেন ‘বিষাণ’ অর্থাৎ শিঙা| কবি নবীন বিপ্লবীদের ঈশানের সঙ্গে তুলনা করে ইংরেজ শাসন ধবংসের বিষাণ বাজাতে বলেছেন। দেশমাতার মুক্তির জন্য যেসব ভারতসন্তান সংগ্রাম করছেন তাদের ওপর অত্যাচার করে, তাদের কারাগারে বন্দি করে ইংরেজরা তাদের স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষাকে দমন করতে চাইছে। তাই তরুণ ঈশানকে অশুভ ইংরেজ শাসনের ধবংসের জন্য প্রলয় বিষাণ বাজাতে হবে।


5.ওরে ও পাগলা ভােলা”—‘পাগলা ভােলা’ কে? কবি এরকম বলেছেন কেন?১+২ [ঝাড়গ্রাম কে কে ইন্সটিটিউশন]

উত্তর: ‘পাগলা ভােলা' কথাটির আক্ষরিক অর্থ প্রলয়ংকর মহাদেব, কিন্তু এখানে স্বাধীনতার স্বপ্নে চল তরুণদের কথা বলা হয়েছে।

শিব তার প্রলয়রূপে যেরকম অশুভ শক্তিকে ধ্বংস করে, কবি প্রত্যাশা করেছেন দেশপ্রেমিক তরুণরা ঠিক সেভাবেই শক্তি ও সাহসের উন্মত্ত প্রকাশে কারাগারের গারগুলােকে হ্যাচকা টান দেবে, লৌহকপাট ভেঙে ফেলবে। এই উদ্যম, স্পর্ধা এবং সাহস আছে বলেই দেশের তরুণদের কবি ‘পাগলা ভােলা’ বলেছেন।


ভাঙার গান বড় প্রশ্ন উত্তর,

নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা  5 নং প্রশ্ন উত্তর


১. ভাঙার গান' শীর্ষক গানটির নামকরণের তা০পর্য আলােচনা করাে।

উত্তর: 'নামকরণ অংশটি দ্যাখাে।


২. 'ভাঙার গান' রচনাটির পটভূমি উল্লেখ করে মমার্থ লেখাে।

উত্তর: ‘ভাঙার গান’ গানটি কাজী নজরুল ইসলাম অসহযােগ আন্দোলনের পটভূমিতে রচনা করেছিলেন ১৯২২ খ্রিস্টাব্দে। এই গানটিতে পরাধীন দেশমাতার শৃঙ্খলমােচনের কথা বিদ্রোহের ভঙ্গিতে প্রকাশিত হয়েছে। অত্যাচারী ইংরেজ শাসক স্বাধীনতা সংগ্রামীদের কারারুদ্ধ করেছে। কবি সেই কারাগারের লৌহকপাট ভেঙে লােপাট করার ডাক দিয়েছেন। ইংরেজের অত্যাচারে দেশমাতার পূজার বেদি রক্তে লাল হয়ে গেছে। বিদেশি শাসকরা স্বদেশপ্রেমীদের গলায় ফাসির দড়ি পরাতে চায়। কিন্তু তারা জানে বিপ্লবী বীরদের মৃত্যু নেই, তাঁরা মৃত্যুঞ্জয়ী রুদ্র মহেশ্বর বা খ্যাপা ভােলানাথের মতাে প্রলয়নৃত্যে সমস্ত বাঁধ ভেঙে তরুণ দেশপ্রেমীরা স্বদেশকে মুক্ত করবেই। অর্থাৎ পরাধীনতার বন্ধন ছিন্ন হবে। তীব্র ঘৃণার পদাঘাতে ভেঙে পড়বে ভীমকারার তালা৷ গােটা দেশটাই আজ যেন এক কারাগার। সেই কারাগার থেকে দেশবাসীকে মুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন কবি। তিনি বিশ্বাস করেন, দেশপ্রেমের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ঐক্যবদ্ধ ভারতবাসী এভাবেই দেশমাতাকে সমস্ত বন্ধন থেকে মুক্ত করবে।


৮ভাঙার গান' কবিতাটিতে কবি নজরুলের কবি মানসিকতার যে পরিচয় প্রকাশ পেয়েছে তা সংক্ষেপে লেখাে 

উত্তর: কাজী নজরুল ইসলামের ‘ভাঙার গান' কবিতাটি স্বাধীনতার জন্য উন্মুখ মানুষের প্রতিবাদ এবং প্রতিরােধের আকাঙ্ক্ষাকেই যেন প্রকাশ করে। এই কবিতায় সাম্রাজ্যবাদী শাসক শ্রেণির প্রতি কবির বিদ্রোহী মনােভাব স্পষ্ট হয়ে উঠেছে কারাগারের লৌহকপাটকে ভেঙে ফেলে সেখানে থাকা ‘রক্ত-

জমাট/ শিকল-পুজোর পাষাণ-বেদী’-কে কবি ধ্বংস করতে বলেছেন। জেলখানার গারদগুলােয় ‘হেঁচকা টান দিতে বলেছেন | আত্মদানের মধ্যে দিয়েই কবি চেয়েছেন জীবনকে নতুনভাবে প্রতিষ্ঠা করতে, বলেছেন- “ডাক ওরে ডাক/মৃত্যুকে ডাক জীবনপানে। কখনওবা বলেছেন বন্দিশালায় আগুন জালিয়ে তাকে উপড়ে ফেলার জন্য। এই আকাঙ্ক্ষার মধ্য দিয়ে কবি নজরুলের শুধু দুঃসাহস নয়, বরং বিদ্রোহ, সত্য ও স্বাধীনতার প্রতি আনুগত্যও প্রকাশ পেয়েছে| আপসহীন প্রতিবাদী মানসিকতায় কবি শুধু বিদ্রোহের কথা বলেননি, স্বাধীনতার জয় ঘােষণা করেছেন। গাজনের বাজনা বাজিয়ে ধ্বংসের মধ্য দিয়ে সৃষ্টির আগমনকে ঘােষণা করেছেন কবি। মৃত্যুর মধ্য দিয়ে সেখানে জীবনের নতুন অভিষেক ঘটবে | শাসক আর শাসিতের মধ্যেকার দূরত্ব মিটে যাবে। এভাবেই ‘ভাঙার গান' কবিতাটিতে নজরুলের স্বাধীনতাপ্রিয় বিদ্রোহী মনােভাবের প্রকাশ ঘটেছে।



[TAG]:   নবম শ্রেণি ভাঙার গান কবিতা pdf,ভাঙার গান কবিতা mcq,ভাঙার গান বড় প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণি,নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা,নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা 3 নং প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা  বড় প্রশ্ন উত্তর,নবম শ্রেণির বাংলা কবিতা 1 প্রশ্ন উত্তর,Class 9 Bengali Kobita question in bengali,







কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন